DBC News
‘অভিযোগের জবাব শোভন রাব্বানীকেই দিতে হবে’

‘অভিযোগের জবাব শোভন রাব্বানীকেই দিতে হবে’

ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগগুলোর জবাব তাদেরকেই দিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।  তাদের মতে, ছাত্রনেতাদের দোষক্রুটি দেখলে অভিভাবক হিসেবে দলের সভাপতি তাদের শাসন করবেন।  তবে ভুল নিজেদেরই শোধরাতে হবে।

শনিবার গণভবনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় হঠাৎ করেই ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ড নিয়ে কথা হয়।  এতে, বর্তমান কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নানা কর্মকাণ্ড নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশের পাশাপাশি কমিটি ভেঙ্গে দেওয়ার চিন্তার কথাও জানান দলের সভাপতি শেখ হাসিনা।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমে আসা নানা অভিযোগের মধ্যে রয়েছে:

  • বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সিনিয়র নেতাদের অপেক্ষায় রেখে দেরিতে উপস্থিত হওয়া
  • জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ও ইডেন কলেজে সম্মেলনের ২ মাস পেরিয়ে গেলেও কমিটি দিতে না পারা
  • কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে কমিটি করার ক্ষেত্রে লেনদেন করা
  • জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বড় প্রকল্পের টেন্ডারে ভাগ বসানো

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, 'ছাত্রলীগের নেত্রী হলেন শেখ হাসিনা। উনি একটি বিষয় বলেছেন, সিলেট থেকে ছাত্রলীগের সভাপতা ও সাধারণ সম্পাদক বিমানে উঠবে, সেই কারণে তারা বিমানবন্দরের সকল নিয়ম ভঙ্গ করবে, রানওয়ে পর্যন্ত চলে যাবে। এটি কাম্য হতে পারেনা।'

দলের আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, 'দলের সভানেত্রী আমাদের সকল সংগঠনের অভিভাবক। সেই অভিভাবকই যখন কোন সংগঠনের শীর্ষ পর্যায়ের কারও প্রতি নেতিবাচক মনোভাব প্রকাশ করেন। তার প্রতি ক্ষোভ ও অসন্তষ্টি প্রকাশ করেন, তাহলে সেই বিষয়টি খতিয়ে দেখে কার্যকরী সিদ্ধান্ত নেয়া আমাদের সকলেরই নেতিক দায়িত্ব।'

নেতারা আরও জানান, ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে এখনি কোন সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে চায় না দল। জাহাঙ্গীর কবির নানক আরও বলেন, 'ছাত্রলীগের কোন খাদ থাকুক এটা আমরা চাইনা, আমাদের নেত্রীও এটা চান না। আমরা তাদের বলেছি, যে অভিযোগ রয়েছে সেগুলো তোমাদেরকেই খণ্ডন করতে হবে। খণ্ডন যদি না করে তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ তো রয়েছেই।'

মাহবুব উল আলম হানিফ আরও জানান, 'এতে দায়িত্বপ্রাপ্ত যে চারজন নেতা রয়েছেন, তারা প্রয়োজনে বসে আলোচনা করে কার্যকরী পদক্ষেপ নিবেন এটাই আমাদের ধারণা।'

আপাতত ছাত্রলীগ নেতাদের গণভবনে ঢুকতে না দিতে এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ না জানাতে বলা হয়েছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন

আটক যুবলীগ নেতা কে এই জি কে শামীম

যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীম। যিনি চলেন সাত বডিগার্ড নিয়ে। রাজধানীর নিকেতন এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ টাকাসহ কেন্দ্রীয় য...

'সরকারের মদদে দেশ দুর্নীতিতে পূর্ণ'

সরকারের মদতে দেশ দুর্নীতিতে পূর্ণ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।  খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সকালে জাতীয় প্রেসক্ল...

আটক যুবলীগ নেতা কে এই জি কে শামীম

যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীম। যিনি চলেন সাত বডিগার্ড নিয়ে। রাজধানীর নিকেতন এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ টাকাসহ কেন্দ্রীয় য...

'সরকারের মদদে দেশ দুর্নীতিতে পূর্ণ'

সরকারের মদতে দেশ দুর্নীতিতে পূর্ণ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।  খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সকালে জাতীয় প্রেসক্ল...