DBC News
মালয়েশিয়ায় জাকির নায়েকের বক্তব্যের প্রতিবাদ

মালয়েশিয়ায় জাকির নায়েকের বক্তব্যের প্রতিবাদ

ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েকের মালেশিয়ার স্থায়ী নাগরিকত্বের বিষয়টি ক্যাবিনেটে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির একজন মন্ত্রী। যিনি মনে করেন, জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে আনা মানি লন্ডারিং ও উসকানিনমূলক বক্তব্য দেয়ার অভিযোগের মুখোমুখি হতে তার ভারতে ফিরে যাওয়া উচিত। জাকির নায়েকের বক্তব্যের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ায় প্রতিবাদের ঝড় ওঠার পর এমন মন্তব্য করলেন এই মন্ত্রী।    

সম্প্রতি জাকির নায়েক মালয়েশিয়ার কোটা বারু শহরে এক বক্তৃতায়  ভারতের মুসলমানদের সঙ্গে মালয়েশিয়ার হিন্দুদের অবস্থান তুলনা করেন। সেখানে তিনি বলেন, 'ভারতে মুসলমানরদের তুলনায় মালয়েশিয়ায় হিন্দুরা ১০০ শতাংশের বেশি সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছে।'

জাকির আরও বলেন, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথীর মোহাম্মদের তুলনায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি বেশি আনুগত্য প্রকাশ করে মালয়েশিয়ার হিন্দুরা। মালয়েশিয়ায় বসবাসকারী হিন্দুদের দেশের প্রতি আনুগত্য নিয়েও প্রশ্ন তোলেন জাকির। এসব বক্তব্যের জেরে শুরু হয় বিতর্কের ঝড়।

জাকিরের মন্তব্যের নিন্দা জানিয়ে মালেশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসেগারান বলেন, 'মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন ধর্মের মানুষ থাকেন। তাদের মধ্যে বিভেদ ছড়াচ্ছেন জাকির নায়েক।'

জাকিরের বিরূদ্ধে এর আগেও বেশ কয়েকবার হিন্দু-মুসলিম বিভেদ ছড়ানোর চেষ্টার অভিযোগ করে তিনি জানান, মালয়েশিয়া থেকে জাকিরকে বিতাড়িত করার চেষ্টা করবেন তিনি।

ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েকের 'উসকানিনমূলক' মন্তব্যের অভিযোগ এনেছে মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল পেট্রিওটস অ্যাসোসিয়েশন। তারা মালয়েশীয়দের কাছে উসকানিমূলক বক্তব্য না দেয়ার জন্য় জাকির নায়েকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। সেইসঙ্গে জাকির নায়েককে মালয়েশিয়া থেকে বের করে দেয়ার দাবি তুলেছে।  

ন্যাশনাল প্যাট্রিয়টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি দাতুক মোহম্মদ আরশাদ রাজি বলেন, ভারতীয় বংশোদ্ভূত মালয়েশিয়দের বিরুদ্ধে কথা বলে প্রধানমন্ত্রীর সুনজরে আসার চেষ্টা করছেন জাকির। তিনি জানান, এই ধরণের স্পর্শকাতর বিষয়ে জাকিরের কথা বলার অধিকার নেই।