DBC News
মশা মারার ওষুধ কে আনবে তা নিয়ে ঠেলাঠলিতে বিরক্ত আদালত

মশা মারার ওষুধ কে আনবে তা নিয়ে ঠেলাঠলিতে বিরক্ত আদালত

এডিস মশা মারার ওষুধ কে আনবে তা নিয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও সিটি করপোরেশনের ঠেলাঠলিতে বিরক্ত আদালত। নির্দেশ দিলেন দ্রুত সময়ের ওষুধ  আনতে। এ সময় মন্ত্রণালয়কে দুই সিটিকে সহযোগিতার নির্দেশও দেন আদালত।

রাজধানীতে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে ডেঙ্গু। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। প্রশ্ন উঠেছে মশার ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে। ঢাকার দুই সিটির গাফিলতিরও অভিযোগ উঠেছে।

কার্যকর ওষুধ আনার বিষয়টি গড়িয়েছে উচ্চ আদালতে। বৃধবারের পর বৃহস্পতিবার আদালত জানতে চান মশা মারার ওষুধ আনতে কত সময় লাগবে। 

এ সময় সিটি করপোরশনের আইনজীবীরা দাবি করেন, মশার ওষুধ আনার দায়িত্ব সরকারের। তাদের কাজ শুধু ছিটনো। তবে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীর দাবি, ওষুধ আনা ও ছিটানো দুইই সিটি করপোরেশনের কাজ।

দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি অবস্থানের পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় সরকার সচিবকে তলব করে আদালত। দুই সিটির প্রধান নির্বাহীকে নিয়ে হাজির হয়ে আদালতকে সচিব জানান, ওষুধ আনবে সিটি করপোরশনই। সহযোগিতা করবে সরকার।

শুনানি শেষে আদালত নির্দেশ দেন, দ্রুত মশার কার্যকর ওষধ আনতে দুই সিটিকে সহযোগিতা করতে হবে সরকারের সব দপ্তরকে। ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসায় প্রতিটি সরকারি হাসপাতালে নূন্যতম একজন সহকারি অধ্যাপক দিয়ে ২৪ ঘণ্টা মনিটরিং করার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। এছাড়া পথশিশুসহ আর্থিক অস্বচ্ছল ব্যক্তির ডেঙ্গু চিকিৎসাও নিশ্চিতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।