DBC News
আত্মহত্যার আগে অপহরণ করে ধর্ষণ করা হয়েছিলো স্কুলছাত্রী বর্ষাকে

আত্মহত্যার আগে অপহরণ করে ধর্ষণ করা হয়েছিলো স্কুলছাত্রী বর্ষাকে

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায় অপহণকারির স্বজনদের অপমানে আত্মহত্যা করা স্কুলছাত্রী সুমাইয়া আক্তার বর্ষাকে ধর্ষণ করা হয়েছিলো। রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের পরীক্ষায় এই আলামত পাওয়া গেছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ থেকে এই প্রতিবেদন পুলিশের কাছে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, অপহরণের পর অসুস্থ অবস্থায় বর্ষাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হলে তার ডাক্তারী পরীক্ষা করা হয়। এতে ধর্ষণের বিষয়টি উঠে আসে। তবে অপহরণের সময় অচেতন থাকায় বর্ষা ধর্ষণের বিষয়টি বলতে পারেনি। তবে সে মৃত্যুর আগে বলে গিয়েছিলো তার সঙ্গে খারাপ কিছু করা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনায় বর্ষার বাবা থানায় ধর্ষণ ও অপহরণের অভিযোগে মামলা করতে গেলেও মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হোসেন ধর্ষণের অভিযোগ গ্রহণ করেননি। পরে শুধু অপহরণের অভিযোগ এনে মামলা গ্রহণ করেন।

এ বিষয়ে একটি পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ হলে ওসি আবুল হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়। 

প্রসঙ্গত, গত ২৩শে এপ্রিল বান্ধবী সোনিয়ার সহযোগিতায় প্রতিবেশি মুকুল অপহরণ করে বর্ষাকে। এরপর তাকে অচেতন করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে রাস্তার পাশে অচেতন অবস্থায় ফেলে গেলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় মামলা করা হলে অপহরণকারি মুকুলের স্বজনদের অপমান ও হুমকিতে গত ১৬ই মে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে স্কুল ছাত্রী বর্ষা।