DBC News
মামাকে বাঁচাতে খাবার বিক্রি করছেন ঢাবি ছাত্রী

মামাকে বাঁচাতে খাবার বিক্রি করছেন ঢাবি ছাত্রী

অসুস্থ মামার চিকিৎসার খরচ জোগাতে ক্যাম্পাসে অস্থায়ী খাবারের দোকান দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ফারজানা সুলতানা। বগুড়ার মেয়ে ফারজানা ঢাবির ইন্সটিটিউট অব এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী। তার মামা আবু মুসা একজন রিকশাচালক।

সম্প্রতি হার্টে ব্লক ধরা পড়েছে আবু মুসার। চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন প্রায় আড়াই লাখ টাকা। আর্থিক অনটনে চিকিৎসার অর্থ জোগাড় করা তার জন্য দুঃসাধ্য। মামার এ অবস্থায় ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন ফারজানা।

এ উদ্যোগে তাকে সহায়তার জন্য কিছু ভলান্টিয়ার চেয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, পড়াশোনার পাশাপাশি রাজধানীর উদয়ন স্কুলে ইন্টার্ন শিক্ষক হিসেবে ক্লাস নেন তিনি। তার মামা বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি। এজন্য কিছুটা উদাসীন দেখে শিক্ষার্থীরাই তাকে সহযোগিতার বাড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু সামান্য এই অর্থ দিয়ে কিছুই হবে না। ইতোমধ্যে টাকা বাকি রেখে দুটি রিং পরানোও হয়েছে। ৬ মাস পর আরও একটা রিং পরাতে হবে।

ফারজানা জানান, 'মামার চিকিৎসার জন্য সোমবারের মধ্যে ৪০ হাজার টাকা লাগবে। ৬ মাস পর আরও অনেক টাকা লাগবে। মামার আর্থিক অবস্থা ভালো না হওয়ায় খাবার বিক্রি অর্থ সংগ্রহ করছি।'

প্রাথমিকভাবে গত বৃহস্পতিবার ১২ জন ক্লাসমেটের জন্য তিনি খাবার রান্না করেছিলেন। তারা খাবার খেয়ে তাকে উৎসাহ দিয়েছেন। এজন্য তিনি শুক্রবার সুফিয়া কামাল হল এবং টিএসসিতে অস্থায়ী খাবার বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এতে তার সহপাঠীরা তাকে সাহায্য করছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ফারজানা জানান, খাবারের স্টলে বিভিন্ন রকম ভর্তা, ভাজি, ডাল, মাছ, ভাত এবং পায়েস রাখা হয়েছে। খাবারের মূল্য তালিকাও দেয়া হয়েছে। স্টলের পাশেই ‘মামার জন্য’ লেখা একটি বাক্স রাখা হয়েছে। কেউ চাইলে আর্থিক সহযোগিতা করতে পারেন।

আরও পড়ুন

৩ হাজার স্কুলে শিক্ষিত হচ্ছে সাড়ে ৩ লাখ রোহিঙ্গা শিশু

দেশি বিদেশি বিভিন্ন দাতা সংস্থার সহযোগিতায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে বসানো হয়েছে প্রায় ৩ হাজার স্কুল। স্থানীয় শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্ত করে ইংরেজি ও বার্মিজ ভাষায় জাতী...

ঋণ খেলাপিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি

খেলাপি ঋণের ব্যাধি থেকে মুক্ত হতে বিচারের সংস্কৃতি ফিরিয়ে আনার তাগিদ দিয়েছেন ব্যাংকাররা। তারা মনে করেন আর্থিকখাতের দুষ্কৃতিকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হলে কমে...

৩ হাজার স্কুলে শিক্ষিত হচ্ছে সাড়ে ৩ লাখ রোহিঙ্গা শিশু

দেশি বিদেশি বিভিন্ন দাতা সংস্থার সহযোগিতায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে বসানো হয়েছে প্রায় ৩ হাজার স্কুল। স্থানীয় শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্ত করে ইংরেজি ও বার্মিজ ভাষায় জাতী...

তিন দশক পর সিনেটে ছাত্র প্রতিনিধি

প্রায় তিন দশক পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট অধিবেশনে যোগ দিচ্ছেন ছাত্রপ্রতিনিধিরা। শ্রেণিকক্ষ ও আবাসন সংকট সমাধান,গবেষণা খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধিসহ বেশকিছু ইস্যু তুলে...

বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালে প্রথম লিভার প্রতিস্থাপন সম্পন্ন

প্রথমবারের মতো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে লিভার প্রতিস্থাপন সম্ভব হয়েছে। তবে এই প্রতিস্থাপন কতটা সফলভাবে সম্পূর্ণ হয়েছে তা জানতে সময় লাগবে আরো...

অপ্রয়োজনীয় সিজার বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

দেশের হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোতে প্রসূতির অপ্রয়োজনীয় সিজার বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট হয়েছে। সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন জনস...

স্বামীর আগুনে দগ্ধ সাজেনুর আর বেঁচে নেই

এক সপ্তাহ বেঁচে থাকা লড়াইয়ের পর সাবেক স্বামীর পেট্রোলের আগুনে পুড়ে মারা গেছেন সাজেনুর। বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেডিকেলের বার্ণ ইউনিটে তার মৃত্যু হয়। গত ১২ জ...

ক্লিনিকের পরিচালকের অস্ত্রোপচারে প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে একটি ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। নিহত রিমা বেগম রাধানগর ইউনিয়নের আক্কেলপুর গ্রামের মিতু মিয়ার মেয়ে। বৃহ...