DBC News
'টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীরা এখনও বহাল'

'টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীরা এখনও বহাল'

টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগ এখনও গ্রহণ হয়নি। এছাড়া, মন্ত্রিসভার রদবদলের সিদ্ধান্তও হয়নি। আজ সোমাবার সচিবালয়ে, প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে এ কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। 

এ সময় মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, নির্বাচনকালীন সরকারের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক এটি। এ সভায় বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন সংশোধন আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে নতুন নাম বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন আইন করা হয়েছে। এ আইনে অ্যান্টি ডাম্পিং, কাউন্টার ভেইলিংয়ের মতো বিষয়গুলো যুক্ত করা হয়েছে, বলেও জানান শফিউল আলম।

টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগ প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ বলেন, 'আমাদের সংবিধান অনুযায়ী প্রজ্ঞাপন না হওয়া পর্যন্ত অর্থাৎ যতদিন গেজেট আকারে প্রকাশিত না হবে ততোদিন পর্যন্ত তারা মন্ত্রী হিসেবে বহাল আছেন বলে গণ্য হবে।'

এর আগে, গেলো ৬ই নভেম্বর আওয়ামী লীগ সরকারের মন্ত্রিসভার টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের (যারা সংসদ সদস্য নয়) পদত্যাগ করার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৬ই নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের সভায় এ নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

টেকনোক্র্যাট কোটার মন্ত্রীরা হলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী  ইয়াফেস ওসমান, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম বিএসসি। এই চার টেকনক্র্যাট মন্ত্রী জাতীয় সংসদের নির্বাচিত সদস্য নন। কিন্তু পরবর্তীতে সরকারের মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পালন করেন।