DBC News
টিভি সম্প্রচারে সম্পূর্ণ প্রস্তুত স্যাটেলাইট

টিভি সম্প্রচারে সম্পূর্ণ প্রস্তুত স্যাটেলাইট

দেশের টিভি চ্যানেলগুলোর সম্প্রচার সেবাদানে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সম্পূর্ণ প্রস্তুত। তবে এজন্য নতুন যন্ত্রপাতি কিনতে হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি। ইন্টারনেট সংযোগসহ অন্যান্য যোগাযোগে সেবা দেয়ার বিষয়ে একটি চুক্তিও হয়েছে। সব মিলিয়ে ৫ মাসের মধ্যেই পুরোপুরি বাণিজ্যিক কার্যক্রমে আসবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট। 

দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষ ফুটবল প্রতিযোগিতা সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। এই আয়োজনের ম্যাচগুলো সরাসরি সম্প্রচার করছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট। আর এর মধ্যে দিয়েই দৃশ্যমান হয় মহাকাশে পাঠানো বাংলাদেশের প্রথম উপগ্রহের কার্যক্রম ও সক্ষমতা।

বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানির চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, 'টেলিভিশন স্টেশনগুলো থেকে আমরা যে মতামত বা ফিডব্যক পেয়েছি তাতে তারা প্রশংসা করে বলেছেন এর মান চমৎকার।'

এদিকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের টেস্ট সিগন্যাল পরীক্ষা করে প্রাথমিক সন্তুষ্টির কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্রডকাস্টার্স এ্যাসোসিয়েশন।

বাংলাদেশ ব্রডকাস্টার্স এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হামিদ উল্ল্যাহ মুকুল বলেন, 'সিগনাল লেভেলে যা পেয়েছি, তাতে আমরা সন্তুষ্ট। যেহেতু ছবিটা স্ট্যন্ডার্ড ডেফিনেশনে আসছে, এটা বিটিভির একটি এএসআই সিগনাল। স্ট্যন্ডার্ড ডেফিনেশন সিগনাল না পেলে আমরা বলতে পারবো না ছবির মান কেমন হবে। সিগনালের মান দেখে আমার মনে হচ্ছে, স্ট্যন্ডার্ড ডেফিনেশন হোক আর হাই ডেফিনেশন হোক অবশ্যই সেটা সফল হবে।'

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সম্প্রচারে যেতে নতুন যন্ত্র লাগবে দেশের টিভি স্টেশনগুলোর। এছাড়া অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তির জন্য আলোচনাও চলছে।

ড. শাহজাহান মাহমুদ আরও বলেন, 'এখন যদি টিভিগুলোকে বলা হয় এন্টেনাটা বাংলাদেশ স্যাটেলাইটের দিকে তাক করতে, তাহলে কিছু আধুনিক যন্ত্রপাতি লাগবে। এতে প্রতি টিভি স্টেশনের প্রায় ৪০ থেকে ৫০ হাজার ডলারের মত খরচ হবে কিন্তু সময় লাগবে।'

তিনি বলেন, 'তবে এছাড়া আমরা এর বিকল্পটাও ভাবছি, যেটাতে হয়তো এত খরচ লাগবে না। সেক্ষেত্রে তার দিয়ে গাজিপুরের সঙ্গে সংযোগ করতে যতটুকু সময় লাগবে। আমরা এরইমধ্যে নৌপরিবহণ সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করেছি। আমরা প্রতি মাসেই কিছু কিছু চুক্তি সই করবো।’

এখন স্যাটেলাইটের মার্কেটিং পলিসি জোরদারের পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা। 

ব্রাক অন্বেষা ন্যানো স্যাটেলাইট প্রকল্পের মূখ্য গবেষক ড. খলিলুর রহমান বলেন, 'আমাদের স্যাটেলাইটে একটা বিশাল অংকের টাকা খরচ হয়েছে। এশিয়ার এই দিকটাতে আমাদের একটা বড় মার্কেট আছে। মার্কেটিং পলিসিটা খুবই আধুনিক হওয়া উচিত। এবং এটা থেকে যেন সর্বোচ্চ সুবিধাটা পাওয়া যায় তা নির্ধারণ করা উচিত।’

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে আছে ৪০টি ট্রান্সপন্ডার। একটি ট্রান্সপন্ডার থেকে একসঙ্গে প্রায় ৯টি টিভি চ্যানেল সম্প্রচার সুবিধা নিতে পারবে।

আরও পড়ুন

কর্ণফুলী টানেলের মূল নির্মাণকাজ শুরু রবিবার

চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে মূল টানেলের নির্মাণকাজ শুরু হচ্ছে রবিবার। টানেল বোরিং মেশিন চালু ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের পিলার পাইলিং প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প...

'আবাসিক ভবনে রাসায়নিক থাকলে কঠোর ব্যবস্থা'

পুরান ঢাকার আবাসিক ভবনে রাসায়নিক দ্রব্য পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র সাঈদ খোকন।  পুরান ঢাকাকে নিরাপদ আবাসস্থল করতে...

রপ্তানির সম্ভাবনাময় খাত তথ্যপ্রযুক্তি

২০২১ সাল নাগাদ তথ্য ও প্রযুক্তিপণ্য রপ্তানির লক্ষ্য পূরণ করতে হলে আগামী ৩ বছরে ৫ গুণ বাড়াতে হবে রপ্তানি। সেজন্য পুরো দেশকে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের আওতায় আনার দা...

পরমাণু বিজ্ঞানী এম ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী পালন

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পরমাণু বিজ্ঞানী এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রয়াত স্বামী ডক্টর এম এ ওয়াজেদ সুধা মিয়ার ৭৮তম জন্মদিন পালন করেছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ রিয়া...