DBC News
গাড়ি কিনতে সুদমুক্ত ঋণসহ রক্ষানাবেক্ষণ খরচ চান সরকারি কর্মকর্তারা

গাড়ি কিনতে সুদমুক্ত ঋণসহ রক্ষানাবেক্ষণ খরচ চান সরকারি কর্মকর্তারা

গাড়ি কিনতে ৩০ লাখ টাকা বিনা সুদে ঋণ আর রক্ষণাবেক্ষণের জন্য মাসিক ৫০ হাজার টাকা ভাতা পাচ্ছেন প্রশাসনের যুগ্ম সচিবদের পাশপাশি উপসচিবরাও। সমমর্যাদার কর্মকর্তা হয়েও অন্য ক্যাডারের কেউ এই সুবিধা পাচ্ছেন না। তাই পর্যায়ক্রমে এই সুবিধার আওতায় সেনাবাহিনীকেও অন্তর্ভুক্ত করতে বলেছেন সাবেক সরকারি কর্মকর্তাদের কেউ কেউ।

প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তারা অবসরে যাওয়ার আগের বছরও বিনা সুদে ঋণ নিয়ে গাড়ি কেনার সুযোগ পান। আবার তারা যানবাহন অধিদপ্তর থেকে গাড়ির সুবিধা পেলেও ঋণের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

এই জাতীয় ঋণ সুবিধা থেকে বঞ্চিত অন্য ক্যাডারের কর্মকর্তারা ঋণ নীতিমালা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তারা সব ক্যাডার সার্ভিসকেই এই সুবিধা দেয়ার কথা বলছেন। সেনাবহিনীতেও সমপর্যায়ের কর্মকর্তাদের এই সুবিধা দেয়ার কথাও বলেছেন অনেকেই। 

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিজিএস লে. জেনারেল (অব.) মইনুল ইসলাম বলেন, 'পুলিশ, বিজিবি এবং সেনাবাহিনীতে যে কর্মকর্তারা আছেন তাদেরকে হয়তো এর আওতায় আনা হয়নি। তবে সরকার যদি চায় তাহলে এটা সম্ভব, কারণ সে ঋণের টাকাতো সে ফেরত দিচ্ছে।'

তিনি আরও বলেন, 'সুবিধা একটা পাচ্ছেন, সেটা হচ্ছে যে, এটা সুদবিহীন, আরেকটা হচ্ছে যে মাসিক ৫০ হাজার টাকা হচ্ছে তার রক্ষণাবেক্ষণ করার জন্যে। এবং এটা নিশ্চয়ই যারা নীতি নির্ধারক আছেন তারা এটা আবার হয়তো বিবেচনা করতে পারেন।'

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বলেন, 'যত বেশি পরিমাণ আমাদের এই সুবিধাগুলো ছড়িয়ে দেয়া যাবে, তত বেশি ভালো। কিন্তু শুরুটাতো করতে হবে কাউকে না কাউকে দিয়ে। এটাতো অবশ্যই নীতিগতভাবে বাস্তবায়ন করার বিষয়। কিন্তু সাধ এবং সাধ্যের মধ্যে যে ফারাকের একটা ব্যপার আছে, আমাদের সঙ্গতি আছে কি না, সেটাও দেখতে হবে।'

তবে নগদায়ন করার বিপক্ষে মত দিয়েছেন সাবেক মন্ত্রী পরিষদ সচিব ড. সা'দাত হুসাইন।
 
সাবেক মন্ত্রীপরিষদ সচিব ড. সা'দত হুসাইন বলেন, 'যারা সরকারের নীতি নির্ধারনী পর্যায়ের দায়িত্বে আছেন, তারা সিদ্ধান্ত নেন যে কাদেরকে কোন সুবিধা দেয়া হবে। এটা তাদের প্রয়োজন এবং পছন্দ, এই দু'টি মিলিয়ে হয়। সেনাবাহিনী, পুলিশ যেসব সুবিধা পায়, সেটা সরকারের অন্যান্য কর্মচারীরা পায় না। আমি ব্যক্তিগতভাবে এর নগদায়নের বিপক্ষে ছিলাম না, কিন্তু আমি দেখেছি সবাই এর পক্ষে।'