DBC News
'সরকার পতন এখন সময়ের ব্যাপার'

'সরকার পতন এখন সময়ের ব্যাপার'

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, 'সরকারের দিন শেষ। জনগণ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। সবাই ইস্পাত কঠিন ঐক্য ধরে রাখলে তাদের পতন এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। একটা জাতীয় ঐক্যের মধ্যে দিয়ে ভয়াবহ দানব সরকারকে সরাতে হবে।'

সোমবার বিএনপি চেয়াপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি, তার সুচিকিৎসা ও আদালত স্থানান্তরের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি জানান নেতারা।

এ সময় মির্জা ফখরুল আরও বলেন, 'খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাগারে রাখা হয়েছে। অামর কারও দয়া ভিক্ষা করছি না। স্পষ্টভাবে বলতে চাই, সব মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। তাকে মুক্তি দিতে হবে। সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।'

আওয়ামী লীগ এখন দেউলিয়া রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, 'এই সরকার গত ১০ বছর ধরে দেশকে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করেছে। আমরা স্বাধীনতা যুদ্ধের মধ্যে দিয়ে যা অর্জন করেছিলাম সব ধূলিস্যাৎ করে দিয়েছে এই সরকার। সংসদকে প্রহসনে পরিণত করেছে। কিছু গৃহপালিত লোক দিয়ে সংসদকে অকার্যকর করে রেখেছে।'

তিনি বলেন, 'তফসিল ঘোষণার আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে, একটি নিরপেক্ষ সরকার তৈরি করতে হবে। নির্বাচন কমিশনকে পুনর্গঠন করতে হবে। নির্বাচন পরিচালনার জন্য সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে কোনো নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে না। সরকার যদি খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয় তাহলে বোঝা যাবে এই সরকার নির্বাচন চায়।'

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরে সভাপতিত্বে মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুক, আবদুস সালাম, আমান উল্লাহ আমান, আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাসচিব মুজিবুর রহমান সরোয়ার, কেন্দ্রীয় নেতা নাজিম উদ্দীন আলম, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদসহ অন্যরা।

এদিকে, মানবন্ধনে পুলিশ লাঠিচার্জ ও সেখান থেকে শতাধিক নেতা-কর্মীকে আটক করেছে।