DBC News
ভিন্নমতে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার অংশীজনরা

ভিন্নমতে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার অংশীজনরা

ডক্টর কামাল হোসেন-বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার পরিধি অক্টোবরের মধ্যেই বাড়তে পারে। আর এই প্রক্রিয়ায় বিএনপির যুক্ত হতে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ার কোনো শর্ত নেই বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল। যদিও বদরুদ্দোজা চৌধুরী জামায়াত প্রশ্নে আপত্তি জানিয়েছিলেন।

দুমাসের মধ্যে ঘোষণা হচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল। সেটা বিবেচনায় রেখে ক্ষমতাসীন জোটের বাইরে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গড়তে ত্রিদলীয় যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

এই ঐক্যে যুক্ত হতে বিশ দলীয় জোট থেকে স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াতকে বাদ দেয়ার শর্ত নেই বলে জানান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, 'কোন শর্ত দেয়নি, এটা আপনাদের ভুল ধারনা। এটা আপনারা ভুল করছেন। বি চৌধুরি সাহেব আমাদেরকে কিছুই বলেননি। আমারাতো পত্র পত্রিকা দেখে রাজনীতি করবো না। আমি তো বাস্তব অবস্থার প্রেক্ষিতে রাজনীতি করবো। এই ধরনের কোন কথা উনি আমাদেরকে বলেননি।' 

এর আগে জামায়াতের সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ সম্পর্ক থাকলে বিএনপিকে ঐক্য প্রক্রিয়ায় বিবেচনা করা হবে না বলে জানিয়েছিলেন বদরুদ্দোজা চৌধুরী। কিন্তু ঐক্য প্রক্রিয়ায় যুক্ত অংশীজনরা বলছেন ভিন্ন কথা।

যুক্তফ্রন্ট এর সদস্য সচিব মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন,'জামায়াতকে তারা ছেড়ে যদি আসতো তাহলে আমরা মনে করি সবচেয়ে ভাল হতো এবং এতে তাদের কোন লসও হতো না বরং লাভই হতো। কিন্তু এটা নিয়ে চাপাচাপি করে ঐক্যকে বিপদগ্রস্ত করবো না।'

বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, 'সমস্যা একটা আছে জামায়াত, জামায়াতের কি হবে।' দ্বিতীয় সমস্যা হলো আসলে নির্বাচিত হবার পরে ছোট দলগুলোর মুল্যায়ন হবে কিনা সে নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন তিনি।

গণফোরাম কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী বলেন, 'জামায়াতের রাজনীতি যারা করবে তারা করবে। আমরা তো জাতীয় ঐক্যের মধ্যে তাদেরকে নিয়ে চিন্তা করি না। বিএনপি যদি আসে ভাল।'
 
এই ঐক্য প্রক্রিয়ার সঙ্গে শুরুতে থাকলেও এখন সতর্কভাবে এগুচ্ছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি কাদের সিদ্দিকী। তিনি বলেন, 'আমরা একটা অর্থবহ জাতীয় ঐক্য করার চেষ্টা করছি। সেটা বিএনপির জন্যে না আওয়ামী লীগের জন্যে না। সেটা জাতীয় ঐক্যের জন্যেই জাতীয় ঐক্য। জামায়াতকে তো নেয়ার প্রশ্নই আসে না। বিএনপিকে আনেক কথার জবাব দিতে হবে। সরকারেরতো ব্যাপারই নেই , কারণ আন্দোলন হচ্ছে সরকারেক বিরুদ্ধে।' 

অক্টোবরের মধ্যে জাতীয় ঐক্য নামে কার্যত সরকারবিরোধী এই মঞ্চের পরিধি বাড়ছে বলে জানান অংশীজনরা।

আরও পড়ুন

কর্ণফুলী টানেলের মূল নির্মাণকাজ শুরু রবিবার

চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে মূল টানেলের নির্মাণকাজ শুরু হচ্ছে রবিবার। টানেল বোরিং মেশিন চালু ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের পিলার পাইলিং প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প...

'আবাসিক ভবনে রাসায়নিক থাকলে কঠোর ব্যবস্থা'

পুরান ঢাকার আবাসিক ভবনে রাসায়নিক দ্রব্য পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র সাঈদ খোকন।  পুরান ঢাকাকে নিরাপদ আবাসস্থল করতে...

'দুর্বলতা কাটাতে বিএনপির পুনর্গঠন চলছে'

সাংগঠনিক দুর্বলতা কাটাতে বিএনপি পুনর্গঠন চলছে বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ...

ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে ছাত্রদল

ডাকসু নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ছাত্রদল। দলীয় মনোনয়ন ফরম বিতরণও শুরু করেছে সংগঠনটি। কাল প্যানেল ঘোষণা করবে ছাত্রলীগ ও বাম ছাত্রসংগঠনগুলো। সোমবার মনোন...