DBC News
৩ কার্যদিবসে লেনদেন বেড়েছে পুঁজিবাজারে

৩ কার্যদিবসে লেনদেন বেড়েছে পুঁজিবাজারে

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন বেড়েছে প্রতি কার্যদিবসেই। সপ্তাহের শুরুতে লেনদেন ৭শ' কোটির ঘরে থাকলেও সপ্তাহের শেষে এসে দাঁড়ায় ৮শ' কোটিতে। সপ্তাহ ব্যবধানে সূচক কমেছে ১৬ পয়েন্ট। 

গেলো সোমবার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ডিএসই'তে মোট লেনদেন কমে দাঁড়ায় ৭০৭ কোটি ৮৯ লাখ টাকায়। সূচক কমে দাঁড়ায় ৫৫৯০ পয়েন্টে।

দ্বিতীয় কার্যদিবসে কিছু বাড়ে লেনদেন। ৭১৬ কোটি ৯৮ লাখ টাকা লেনদেন ও সূচক কমে ৩৮ পয়েন্ট। তৃতীয় কার্যদিবস বুধবার। লেনদেন বেড়ে পৌঁছায় ৮শ' কোটির ঘরে। ৮১১ কোটি ৭৫ লাখ টাকার লেনদেন ও সূচক বাড়ে ১০ পয়েন্ট। এছাড়া আর্থিক লেনদেন এবং অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে।

এদিকে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৩৬টি কোম্পানির মধ্যে ১৫৬টি বা ৪৬.৪৩ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১৩১টি বা ৩৮.৯৯ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৯টি বা ১৪.৫৮ শতাংশ কোম্পানির।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে খুলনা পাওয়ারের শেয়ার। বুধবার কোম্পানির ৬০ কোটি ১৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ারের ৩০ কোটি ১৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৯ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পেনিনসুলা চিটাগাং।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ইউনিক হোটেল, আমান ফিড, কনফিডেন্স সিমেন্ট, বিবিএস কেবলস, ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স, আইপিডিসি ও বিএসআরএম লিমিটেড।

বৃহস্পতিবার এসে লেনদেন বেড়ে হয় ৮১৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা। সূচক বাড়ে ১২ পয়েন্ট। 

গেল সপ্তাহে দাম বাড়ার তালিকায় শীর্ষে ছিলো- খুলনা পাওয়ার, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল, কনফিডেন্স সিমেন্ট, ইনটেক লিমিটেড ও নাহি এলুমিনিয়াম।

দর কমার তালিকায় থাকা প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- সাভার রিফ্যাক্টরিজ, রংপুর ডেইরি, প্রভাতি ইন্স্যুরেন্স, এইচ আর টেক্সটাইল ও এশিয়ার টাইগার সন্ধানী লাইফ গ্রোথ ফান্ড।