DBC News
ত্রিদেশীয় সম্মেলনে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখান রাশিয়ার

ত্রিদেশীয় সম্মেলনে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখান রাশিয়ার

সিরিয়া ইস্যুতে ইরানের রাজধানী তেহরানে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সম্মেলনে ইদলিবে তুরস্কের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছে রাশিয়া।

বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ইদলিবে বেসামরিক নাগরিকদের মৃত্যু বন্ধে এই প্রস্তাব দেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। বৈঠকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, ইদলিবে অভিযান অব্যাহত রাখবে রাশিয়া। তার সঙ্গে একমত প্রকাশ করেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি।

এদিকে, ত্রিদেশীয় বৈঠকের আগে, এর আলোচনা ফলপ্রসু হবে বলে আশা প্রকাশ করেছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ইদলিবের সংকট সমাধানে একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছানো যাবে বলেও মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

সিরিয়ার ইদলিবে আসাদবাহিনীর অভিযান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার পাল্টাপাল্টি হুঁশিয়ারির মধ্যেই সিরিয়ায় সংকট সমাধানে বৈঠক করেন তিন দেশের প্রেসিডেন্ট, রাশিয়ার ভ্লাদিমির পুতিন, ইরানের হাসান রুহানি ও তুরস্কের রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। 

তবে ইরানের রাজধানী তেহরানে শুক্রবার অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ। সিরিয়ায় বিদ্রোহীদের দখলে থাকা ইদলিবে আসাদবাহিনীর অভিযান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার হুঁশিয়ারি পাল্টা হুঁশিয়ারির মধ্যেই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। 

২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানায় সিরিয়া বিষয়ক যে শান্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল তার উদ্যোক্তা ছিল ইরান, রাশিয়া ও তুরস্ক। আস্তানা সম্মেলনের উল্লেখযোগ্য সাফল্য হচ্ছে ওই সম্মেলন থেকে সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি অঞ্চল প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত হয়। এর জেরে দেশটির সহিংসতা অনেকাংশে কমে আসে।

উল্লেখ্য, রুহানি, পুতিন ও এরদোয়ান ২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর রাশিয়ার সোচি শহরে প্রথম সিরিয়া বিষয়ক ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হন। ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল তুরস্কের আঙ্কারায় তিন প্রেসিডেন্টের মধ্যে দ্বিতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ প্রক্রিয়ার ধারাবাহিকতায় শুক্রবার তেহরানে তাদের মধ্যে তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।