DBC News
'ইউনুস হত্যার পেছনে মিথ্যা মামলাই কারণ'

'ইউনুস হত্যার পেছনে মিথ্যা মামলাই কারণ'

ঘুষ না দেয়ায় মামলা, তারপর অব্যাহতির কথা বলে তিন লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে খুন করা হয় রাজধানীর শ্যামপুরের ব্যবসায়ী ইউনুস হাওলাদারকে। হত্যার সঙ্গে এক পুলিশ সদস্য জড়িত থাকার কথা ওঠে এসেছে তদন্তে। আর হত্যায় জড়িত থাকার কথা জবানবন্দিতে স্বীকার করেছে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে আবির্ভূত হওয়া ভাড়াটিয়া।

ব্যবসায়ী ইউনুস হাওলাদারের বিরুদ্ধে নিজের বাড়িতে মানবপাচার ও অসামাজিক কার্যকলাপ চালানোর অভিযোগে একটি মামলা হয় শ্যামপুর থানায়। মামলা থেকে অব্যাহতির ব্যবস্থা করার কথা বলে খরচ হিসেবে তিন লাখ টাকা চেয়েছিল তাদের ভাড়াটিয়া সুমন।

সে টাকা দিতেই গত ২৪শে জুন রাতে বের হন ইউনুস। পরদিন সকালে কেরানীগঞ্জের একটি আবাসন প্রকল্প থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মামলাটি মিথ্যা ছিল দাবি করে নিহতের স্ত্রী বলছেন, মামলাটি না হলে এমন ঘটনা ঘটতো না। নিহত ইউনুসের স্ত্রী মারুফা খানম বলেন,
‘উনার মৃত্যুর কারণতো এই মামলাটাই। মিথ্যা মামলা। উনাকে বলেছি, মিথ্যা মামলা, কোন হয়রানি কইরেন না। কিছু টাকা পয়সাও চেয়েছে।’

বাড়ির কেয়ারটেকার বলছেন, অভিযানে এসে শ্যামপুর থানার তখনকার এসআই মাহবুব টাকা দাবি করেছিলেন। টাকা না দেয়ার কারণেই ইউনুসকে আসামী করে ওই মামলা করা হয়। কেয়ারটেকার হেমায়েত বলেন, ‘কিছু পায়নি, এরপর টাকা চায়। পাঁচ হাজার টাকা চেয়েছিল। বলেছিল পাঁচ হাজার টাকা দাও, আমরা চলে যাই।’

বরিশাল ভিলায় অভিযান ও পরে তদন্ত করতে গিয়ে ঘুষ চাওয়ার বিষয়ে শ্যামপুর থানার এসআই নজরুলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করেন।

শ্যামপুর থানার উপ-পরিদর্শক নজরুল ইসলামের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘থানায় একটি মামলা সম্পর্কে চার্জশিট দেয়া হলে, সেই মামলা নিয়ে কোন খবর রাখার প্রশ্নই আসে না। এই ব্যাপারে আমি কিছু বলতে পারি না। এগুলো তারা মিথ্যা বলছে। তারা কেন মিথ্যা বলছে তাও বলতে পারছি না।’

অবশ্য ইউনুস হত্যার প্রাথমিক তদন্তে শ্যামপুর থানার এএসআই নুরে আলম জড়িত বলে উঠে এসেছে। আর প্রধান আসামী ভাড়াটিয়া সুমন এরই মধ্যে ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে। আরেক সহযোগী শামীমকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

কর ও শুল্ক আরোপের প্রভাব নির্মাণ খাতে

বাজেটে কর ও শুল্ক আরোপের কারণে, বেড়ে গেছে রড ও সিমেন্টের উৎপাদন খরচ। বেড়ে গেছে দামও। আর তার প্রভাব পড়েছে নির্মাণ খাতে। ফলে ফ্ল্যাটের দাম মধ্যবিত্তের নাগালের বাই...

শাহজালাল বিমানবন্দরে ইয়াবাসহ আটক দুই

রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১ হাজার পিস ইয়াবাসহ এক নারী এবং ১ যাত্রীকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলেন মোহাম্মদ সাইফুল ও...

শাহজালাল বিমানবন্দরে ইয়াবাসহ আটক দুই

রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১ হাজার পিস ইয়াবাসহ এক নারী এবং ১ যাত্রীকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলেন মোহাম্মদ সাইফুল ও...

গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু

গুজব কিংবা সন্দেহের বশে গণপিটুনি দিয়ে হত্যার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ। এরইমধ্যে গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে তারা। কাজ করছ...