DBC News
'রোহিঙ্গা ইস্যুকে সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে গুরুত্ব দেবে যুক্তরাষ্ট্র'

'রোহিঙ্গা ইস্যুকে সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে গুরুত্ব দেবে যুক্তরাষ্ট্র'

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের আগামী অধিবেশনের আলোচনায় রোহিঙ্গা সংকট ইস্যুকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গুরুত্ব দেবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। বুধবার ঢাকায়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে একথা জানান তিনি। 

পররাষ্ট্রসচিব এম শহীদুল হকের সঙ্গে বৈঠক করতে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তাঁর কার্যালয়ে যান মার্শা বার্নিকাট। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন বার্নিকাট।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থানের পাশাপাশি বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়েও কথা বলেন এ রাষ্ট্রদুত। বার্নিকাট বলেন, বাংলাদেশের জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্র সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আশা করে। বাংলাদেশ সরকারও এমন নির্বাচন চায় বলেও মনে করেন তিনি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিয়ে নিউইয়র্ক যাওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। সেখানে বাংলাদেশের পক্ষ থেকেও জোরালো পদক্ষেপ নেয়া হবে। 

এদিকে, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী জানান, কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়ন হলেই রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান হবে। আজ বুধবার সকালে, রাজধানীর মিরপুর ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান নিয়ে আয়োজিত এক সেমিনারে এ কথা বলেন তিনি। এ সময় শিগগিরই রোহিঙ্গাদের একটি দলকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারকে যারা সহযোগিতা করছে, সমর্থন করছে, বাংলাদেশ তাদের সাথে সম্পর্ক শীতল করবে না। সেসব দেশের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতীম সম্পর্ক রয়েছে। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন খুব শিগগিরই শুরু হবে এবং কক্সবাজার পর্যটন জেলা হলেও প্রশাসন নিরাপত্তার বিষয়ে সতর্ক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

গেল ২৭শে আগস্ট, মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যার দায়ে দেশটির সেনাপ্রধান ও শীর্ষ পাঁচ সেনা কর্মকর্তাকে বিচারের মুখোমুখি করার আহ্বান জানান জাতিসংঘের তদন্ত কর্মকর্তারা।

গেল বছরের আগস্টে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নৃশংস হত্যাযজ্ঞ চালায় মিয়ানমার। এ অভিযানের মধ্যে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন।