DBC News
রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে মুক্তি দিতে জাতিসংঘের আহ্বান

রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে মুক্তি দিতে জাতিসংঘের আহ্বান

মিয়ানমারে দণ্ডপ্রাপ্ত রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে মুক্তি দিতে দেশটির সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। স্থানীয় সময় সোমবার এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান জাতিসংঘের নবনিযুক্ত মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাশেলেট।

মিশেল ব্যাশেলেট বলেন, 'যে আইনি প্রক্রিয়ায় তাদের দণ্ড হয়েছে তাতে স্পষ্টভাবেই আন্তর্জাতিক মান লঙ্ঘন করা হয়েছে।' তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার মধ্য দিয়ে সাংবাদিকদের স্বাধীনভাবে কাজ করতে না পারার বার্তা দিচ্ছে মিয়ানমার। 

গত বছরের ২৫শে আগস্ট নির্যাতনের মুখে রাখাইন রাজ্য থেকে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাস্তুচ্যুত হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। একে জাতিসংঘ ‘জাতিগত নিধন’ বলে আখ্যায়িত করেছে। রাখাইন রাজ্য থেকে সেনাবাহিনীর রোহিঙ্গা গণহত্যার তথ্য সংগ্রহ করার সময় গত ডিসেম্বরে আটক করা হয় রয়টার্সের দুই সাংবাদিক ওয়া লোন ও কিয়াও সো ওকে।

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতার ঘটনা অনুসন্ধানের সময় রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে ইয়াঙ্গুনের জেলা জজ আদালত তাদের এই সাজা দিয়েছে বলে সোমবার রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়। রায় ঘোষণার সময় সাজা পাওয়া দুই সাংবাদিক ওয়া লোন  এবং কিয়াও সোয়ে আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিচারক ইয়ে লুইন বলেছেন, 'এই দুইজন উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই রাষ্ট্রীয় স্বার্থের ক্ষতি করেছেন।'

তবে, প্রায় আট মাস ধরে চলা শুনানিতে ওয়া লোন ও কিয়াও সোয়ে দু'জনেই বলে আসছেন যে দুই পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে তারা সেদিন দেখা করতে গিয়েছিলেন, তাদের সঙ্গে আগে কখনও সাক্ষাৎ হয়নি। ইয়াঙ্গুনের একটি রেস্টুরেন্টে গত বছরের ১২ই ডিসেম্বর প্রথমবার দেখা করতে গেলে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তা তাদের হাতে মুড়িয়ে রাখা কিছু কাগজ ধরিয়ে দিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের আটক করে পুলিশের একটি গাড়িতে তুলে নেয়।