DBC News
নাফটা চুক্তিতে আমেরিকা-মেক্সিকোর সম্মতি প্রকাশ

নাফটা চুক্তিতে আমেরিকা-মেক্সিকোর সম্মতি প্রকাশ

উত্তর আমেরিকান মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি নাফটার নতুন বাণিজ্য শর্তাবলীর সঙ্গে সম্মতি প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকো।

স্থানীয় সময় সোমবার, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ তথ্য নিশ্চিত করেন। ট্রাম্প ও মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক পিনা নিয়েতো এই চুক্তিতে কানাডাকে সংযুক্ত করার জন্য চাপ প্রয়োগ করবে বলেও সিদ্ধান্ত নেন।

এ ব্যাপারে কানাডার সঙ্গে শীঘ্রই আলোচনা শুরু হবে বলেও জানান তারা। তবে কানাডা যদি এই ত্রিপাক্ষিক চুক্তিতে সম্মতি না প্রকাশ করে, তবে দেশটির প্রস্তুতকৃত গাড়ির ওপর আমদানি শুল্ক আরোপের হুমকি দিয়েছেন ট্রাম্প। হোয়াইট হাউজের ওভাল অফিসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপকথনের সময় ট্রাম্প প্রাথমিক এই সমঝোতার প্রশংসা করে এটিকে উভয় দেশের জন্য ‘অবিশ্বাস্য চুক্তি’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো প্রাথমিক সমঝোতায় পৌঁছানোর খবরে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারে চাঙ্গাভাব লক্ষ্য করা গেছে। একইসঙ্গে শক্তিশালী হয়েছে মেক্সিকোর মুদ্রাও। তবে এই চুক্তির চূড়ান্ত পরিণতি কী হবে সেটি নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কারণ নাফটার তৃতীয় দেশ কানাডা আজ মঙ্গলবার মেক্সিকো-যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় যোগ দেবে।

অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অটোয়াকে ছাড়াই মেক্সিকোর সঙ্গে চূড়ান্ত সমঝোতায় পৌঁছানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন। এমনকি তিন জাতির নাফটা চুক্তির নামও পরিবর্তন করতে চান তিনি।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, আমরা এটাকে নাফটা বলতাম। তবে আমরা এটিকে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো বাণিজ্য চুক্তি বলবো। আমরা নাফটা নাম মুছে ফেলবো।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, চুক্তির তৃতীয় দেশ হিসেবে তিনি ‘খুব শিগগিরই’ কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে আলোচনায় বসার জন্য আহ্বান জানাবেন।

এর আগে চুক্তির ব্যাপারে আলোচনায় বসার জন্য সোমবার কানাডার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিকে পেনা নিয়েটা। তবে কানাডাকে ছাড়া মেক্সিকোর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র আদৌ কোনও চুক্তিতে পৌঁছাতে পারবে কিনা সেটি নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের উৎপাদন খাতের শ্রমবাজার বিশেষ করে অটো ইন্ডাস্ট্রি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে অভিযোগ করে ১৯৯৪ সালে করা নাফটা চুক্তি নিয়ে আবারও দর-কষাকষির দাবি জানিয়ে আসছিলেন ট্রাম্প।