DBC News
মোসাদ্দেক ইস্যুতে বিব্রত বিসিবি

মোসাদ্দেক ইস্যুতে বিব্রত বিসিবি

শুধু নারী কেলেঙ্কারি না, যে কোন বিতর্কিত কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ক্রিকেটারদের কঠোর শাস্তির ব্যাপারে একমত বিসিবি। সব শেষ মোসাদ্দেক সৈকতের বিরুদ্ধে স্ত্রীর করা যৌতুক মামলায় বিব্রত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। মামলা আদালতে থাকায় আপাতত কিছু বলতে নারাজ বিসিবি।   

মোসাদ্দেক সৈকতকে ঠিকই খুঁজে নিলো ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসটিকের অনুসন্ধানী চোখ। স্ত্রী সামিয়া শারমীনের করা যৌতুকের মামলায় টাইগার মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সৈকতকে নিয়ে চলছে সমালোচনার ঝড়। আর তাই এক জন যোগ্য নেতার মতই মোসাদ্দেকের সাথে আগ বাড়িয়ে কথা বলেছেন ম্যাশ।

শুধু কি মোসাদ্দেক? মাশরাফির কাঠ গড়ায় হাজির দলের বাকিরা। একের পর এক নারী নির্যাতনের কেলেঙ্কারিতে জড়িয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। রুবেল হোসেন, নাসির হোসেন, আরাফাত সানি, সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ শহীদের পর নারী কেলেঙ্কারিতে যোগ হয়েছেন মোসাদ্দেক। বিপাকে পড়েছে বিসিবি। সুনাম হারিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। আর তাই ক্রিকেটারদের মান বাঁচাতে আরও কঠোর সিদ্ধান্তে যাচ্ছে বিসিবি।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, 'এটা তার একান্ত ব্যক্তিগত, পারিবারিক ব্যাপার। অভিভাবক হিসেবে আমাদের যেটা করণীয় আমরা করব। বোর্ডের অবস্থান এ ব্যাপারে কঠোর হবে, এইটুকু বলতে পারি। বোর্ড সভাপতি দেশের বাইরে আছেন। উনি যাওয়ার আগে এসব নিয়ে আলোচনা করেছেন। মোসাদ্দেকের ইস্যু আসার আগে অন্য বিষয় ছিল যেগুলো নিয়ে আমাদের আলোচনা হয়েছে। কিছু নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে,তা আপনারা শীঘ্রই জানতে পারবেন।মোসাদ্দেকের ব্যাপারটা যেটা দেখেছি উনার স্ত্রী মামলা করেছেন, যেহেতু ওটা আলালতে চলে গেছে ওটা আলাদতে চলে গেছে। আদালতে নিষ্পত্তি হোক। আর আমরা আমাদের বিষয়গুলোকে আমাদের মত করে দেখব। হয়ত খুব শীঘ্রই বসব, সংশ্লিস্ট প্লেয়ারদের ডাকা হবে। তাদের বক্তব্য শুনব।’ 

বিসিবি প্রধান দেশের বাইরে থাকাতে আপাতত কোন সিদ্ধান্ত নয়। তবে তিনি দেশে ফিরলে বেশ কজন ক্রিকেটারের ডাক পড়ছে বিসিবিতে এটা নিশ্চিত।