DBC News
'কফি আনান নিজেই জাতিসংঘ ছিলেন'

'কফি আনান নিজেই জাতিসংঘ ছিলেন'

জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিশ্বনেতারা। শনিবার ৮০ বছর বয়সে বিশ্ববরেণ্য এই নেতার মৃত্যু  হয়। 

কফি আনানের মৃত্যুর সংবাদ প্রকাশের পর জাতিসংঘের বর্তমান মহাসচিব অ্যান্তনিও গুয়েতেরেস কফি আনানকে মঙ্গলের পথপ্রদর্শক বলে উল্লেখ করেন। এক বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, অনেক দিক দিয়েই কফি আনান নিজেই জাতিসংঘ ছিলেন।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন কফি আনানকে অসাধারণ ব্যক্তিত্ব বলে উল্লেখ করেছেন। অন্যদিকে, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, কফি আনান সুন্দর পৃথিবী গড়তে সবসময় লড়াই করেছেন।

সুইজারল্যান্ডের বার্নের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নোবেলজয়ী এই ব্যক্তিত্ব। এ সময় তাঁর পাশে ছিলেন স্ত্রী নানে এবং তিন সন্তান।

১৯৩৮ সালে ঘানায় জন্ম নেয়া কফি আনান জাতিসংঘের সপ্তম মহাসচিব ছিলেন। ১৯৯৭ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দুই মেয়াদে ওই দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

মানবিক কর্মকাণ্ডের জন্য ২০০১ সালে জাতিসংঘের সঙ্গে যৌথভাব শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান কফি আনান। মিয়ানমারের রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধানে রাখাইন অ্যাডভাইজরি কমিশনের প্রধান হিসেবে কাজ করছিলেন তিনি। 

২০০৭ সালে মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা বৈশ্বিক নেতাদের গ্রুপ দ্য এলডারস’র প্রতিষ্ঠা হলে এর সদস্য হন কফি আনান। ২০১৩ সালে ওই গ্রুপের চেয়ারম্যান হন তিনি। ২০০৬ সালে মহাসচিবের দায়িত্ব ছাড়ার পর সিরিয়া সংঘাতের শান্তিপূর্ণ সমাধান খুঁজতে জাতিসংঘের বিশেষ দূত হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি।