DBC News
লিবিয়ায় গণহত্যায় ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

লিবিয়ায় গণহত্যায় ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

লিবিয়ায় ২০১১ সালে গণঅভ্যুত্থানের সময় রাজধানীর ত্রিপোলিতে চালানো হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে ৪৫ জনকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে দেশটির ফৌজদারি আদালত। স্থানীয় সময় বুধবার এই রায় ঘোষণা করে দেশটির আদালত।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এই রায়ে আরও ৫৪ জনকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও ২২ জনকে খালাস দিয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে দেশটির বিচার মন্ত্রণালয়।

বিচার মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে মামলার বিস্তারিত জানানো হয়নি। তবে, বিচার মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, লিবিয়ার সাবেক নেতা কর্নেল মুয়াম্মার গাদ্দাফি ত্রিপোলি থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় ও ক্ষমতাচ্যূত হওয়ার কিছুদিন আগে থেকে তার অনুগত বাহিনীর দ্বারা সংঘটিত হত্যাকান্ডের সঙ্গে মামলাগুলোর সম্পর্ক আছে।

রায় ঘোষণার সময় আদালতে আসামি পক্ষের আইনজীবী ও অভিযুক্তদের স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। তবে অভিযুক্তরা এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।

২০১১ সালে গণঅভ্যুত্থান চলাকালে অন্তত ২০ জনকে হত্যার দায়ে অভিযুক্তদের এ সব শাস্তি দেয়া হয়েছে।

২০১১ সালের পর থেকে দেশটির আদালতের দেয়া মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়েছে এমন খবর পাওয়া যায়নি। গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যূত ও নিহত হবার পর থেকেই দেশটি বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। এছাড়া পরবর্তী কয়েক বছর ধরে দেশটির মধ্যে সশস্ত্র যুদ্ধ চলতে থাকে।

এদিকে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সবশেষ বার্ষিক প্রতিবেদনে লিবিয়ার আদালত ব্যবস্থাকে অকার্যকর বলে বর্ণনা করা হয়েছে। এ প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ২০১১ সালের পর থেকে অনেক বন্দি বিনা বিচারে আটক আছেন। আটক ব্যক্তিরা নিজেদের অবস্থার বিরুদ্ধে আদালতে চ্যালেঞ্জ করারও কোন সুযোগ পাচ্ছেনা বলেও জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।