DBC News
'এনআরসির তালিকা ত্রুটিপূর্ণ'

'এনআরসির তালিকা ত্রুটিপূর্ণ'

ভারতের আসামে সম্প্রতি প্রকাশিত ন্যাশনাল রেজিস্টার অব সিটিজেনস, এনআরসির তালিকা ত্রুটিপূর্ণ বলে মন্তব্য করেছেন, রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ।

দেশটির গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, 'এই তালিকা থেকে যে ৪০ লাখ মানুষ বাদ পড়ছে, এদের বেশিরভাগই প্রকৃত ভারতীয় নাগরিক।' 

হাইকোর্টের আদেশ অনুয়ায়ী, ১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চের আগে যারা আসামে এসেছে, তারাই ভারতীয় নাগরিক। যদিও রাজ্য সরকার বলছে, যারা তালিকা থেকে বাদ পড়েছে তাদেরও নাগরিকত্ব প্রমাণের সুযোগ রয়েছে এবং আগামী ২৮শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত, আবেদন করতে পারবে। 

এর আগে, এনআরসি তালিকা প্রকাশের মাধ্যমে বিজেপি আসামকে রক্তাক্ত ও সংঘাতময় পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তরুণ গগৈ।

প্রসঙ্গত, আসামের রাজধানী গুয়াহাটি থেকে চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিকত্ব নিবন্ধন তালিকা উন্মুক্ত করা হয়। এতে বাদ পরে ৪০ লাখের বেশি মানুষ। ফলে নিজ ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ হতে পারেন তারা, যাদের বেশিরভাগই মুসলমান। আগামী ২৮শে সেপ্টেম্বরের মধ্যে নাগরিকত্বের জন্য আবার আবেদন করতে পারবেন তারা।    

অভিযোগ আছে, রাজ্যের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা মেটাতেই নিচ্ছে এমন পদক্ষেপ। আর রাজ্য সরকার বলছে, অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করে, বের করে দিতেই এ পদক্ষেপ।

অন্যদিকে আবার আবেদনের জন্য সময় দেয়া হলেও নাগরিকত্ব থাকবে কি না তা নিয়ে নিশ্চিত হতে পারছেন না অনেকেই। ভুক্তভোগীরা জানান, 'এনআরসিতে হয়তো নাম আসেনি। কিন্তু এর মানে এই নয় যে, আমরা বাংলাদেশি হয়ে গেছি। ১৯৭১ সালেরও বহু আগে আমরা এসেছি।'