DBC News
মাইলফলক স্পর্শ করার স্মরণীয় মুহূর্তে ইংল্যান্ড

মাইলফলক স্পর্শ করার স্মরণীয় মুহূর্তে ইংল্যান্ড

ইতিহাস গড়ার সন্ধিক্ষণে ইংল্যান্ড। প্রথম দল হিসেবে খেলবে ১০০০তম টেস্ট। এই চলার পথে ক্রিকেটকে কত কিছুই না উপহার দিয়েছে ক্রিকেটের জনকরা। পাশাপাশি সমৃদ্ধ করেছে নিজেদের ক্রিকেটকেও।

পাঁচ টেস্ট ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে বুধবার মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও ভারত। এজবাস্টনে এ ম্যাচের মধ্য দিয়েই প্রথম দেশ হিসেবে ১০০০ টেস্টের মাইলফলক স্পর্শ করবে ক্রিকেটের সবচেয়ে প্রাচীনতম দেশ ইংল্যান্ড। বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হবে ম্যাচ।

১৮৭৭ সালের মার্চে এমসিজিতে ইতিহাসের প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয় ইংল্যান্ড।

১৮৮২ সালের আগস্টে অ্যাশেজের জন্ম। প্রথম ম্যাচটা ইংলিশরা হেরে যায় ৮৫ রানে। ওভালের ঐ হারের যন্ত্রণাটা এতোই বিষাদময় ছিল যে ক্রিকেটের মৃত্যু ঘোষণা করে ইংলিশরা। ১৮৮৩ এর শুরুতে প্রথমবারের মতো অ্যাশেজ জেতে ইংল্যান্ড। ইতিহাস গড়ে ১৮৯৪ সালের ডিসেম্বরে। ফলোঅনে পড়লেও প্রথম দল হিসেবে টেস্ট জয় করে ব্রিটিশরা।

এরপর ১৯৩৩ সালের জানুয়ারিতে অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বহুল আলোচিত বডিলাইন টেস্ট। ১৯৩৮ সালের আগস্টে ইনিংস ব্যবধানে সবচেয়ে বড় জয়ের স্বাদ নেয় ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়াকে ইনিংস ও ৫৭৯ রান ব্যবধানে হারায় ইংল্যান্ড।

২০০৪ সালের এপ্রিলে ১৯৬৮ সালের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজে প্রথম সিরিজ জিতে নেয়। ১৯৮৬-৮৭'র পর প্রথমবারের মতো ২০০৫ সালের সেপ্টম্বরে অ্যাশেজ জয় করে ইংল্যান্ড।

এরপর ২০১১ সালের জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩-১ এ সিরিজ জয়। ইংলিশরা তিনটা ম্যাচই জিতেছিল ইনিংস ব্যবধানে। ১৯৮৪-৮৫ এর পর ২০১২ সালের ডিসেম্বরে ভারতের মাটিতে সিরিজ জেতে ইংল্যান্ড।

১৪১ বছরের দীর্ঘ ইতিহাসটা ইংল্যান্ডের পক্ষেই। ইংলিশরা জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে ৩৫৭ টি টেস্ট ম্যাচে। হার ২৯৭ টিতে এবং ড্র হয়েছে ৩৪৫ টি ম্যাচ।

ইতিহাস গড়া এই ম্যাচের আগে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসির পক্ষ থেকে ইংল্যান্ড দলের উদ্দেশ্যে পাঠানো হয়েছে অভিনন্দন বার্তা।

প্রথম দেশ হিসেবে ১০০০ টেস্টের মাইলফলক স্পর্শ করায় ইংলিশ ক্রিকেট দলকে আগামীর জন্য শুভকামনাও জানিয়েছে আইসিসি।