DBC News
ভল্টের সোনায় কী হয়েছে তা খতিয়ে দেখা হবে; অর্থ প্রতিমন্ত্রী

ভল্টের সোনায় কী হয়েছে তা খতিয়ে দেখা হবে; অর্থ প্রতিমন্ত্রী

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ভল্টে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের রক্ষিত সোনা বদলে যাওয়ার যে অভিযোগ উঠেছে, সরকার তা ‘আইনানুগভাবে’ খতিয়ে দেখবে বলে জানিয়েছেন, অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে রাখা স্বর্ণ সংরক্ষিতই আছে বলেও জানান তিনি। গভর্নর ও শুল্ক গোয়েন্দা মহাপরিচালকের সঙ্গে বৈঠক শেষে এ কথা জানান, অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। তার দাবি, প্রযুক্তিগত দুর্বলতার কারণেই স্বর্ণ পরিমাপে হিসাবের তারতম্য পেয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দারা। 

বুধবার সকালে বাংলাদেশ ব্যাংক, শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করেন, অর্থপ্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, অর্থমন্ত্রী দেশে ফেরার পর ভল্টের স্বর্ণ আরেক দফা পরীক্ষা করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে। তবে বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টের ৬ স্তরের নিরাপত্তা ভেদ করাটা অসম্ভব বলে মনে করেন প্রতিমন্ত্রী। যন্ত্রের ত্রুটি আর বাংলা ও ইংরেজি লেখার ভূলের কারণে হিসাবের সামান্য গড়মিল দেখা দিয়েছে বলে জানান তিনি। তবুও বিষয়টিকে ছোট করে দেখছেন না তিনি। সরকারের উচ্চ পর্যায়ে বিষয়টা জানানোর কথাও জানান তিনি। বলেন, 'আমি এটা বলতে পারি, সেখানে আসলে কী হয়েছে- তা দেখা হবে।'

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের এক অনুসন্ধানের তথ্যের ভিত্তিতে একটি জাতীয় দৈনিকে মঙ্গলবার প্রকাশিত এক সংবাদ প্রতিবেদনে ভল্টের সোনা নিয়ে অভিযোগটি আলোচনায় আসে। ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে ভুতুড়ে কাণ্ড’ শিরোনামে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে রক্ষিত শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের ৯৬৩ কেজি সোনা পরীক্ষা করে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে অনিয়ম ধরা পড়েছে। জমা দেয়ার সময় যা ৮০ শতাংশ বিশুদ্ধ সোনা হিসেবে গ্রহণ করে প্রত্যয়নপত্র দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক, দুই বছর পর তা পরীক্ষা করে ৪৬ দশমিক ৬৬ শতাংশ সোনা পাওয়া গেছে। আর ২২ ক্যারেটের সোনা হয়ে গেছে ১৮ ক্যারেট। 

আরও পড়ুন

শুরু হলো প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা

দেশের প্রায় সাড়ে সাত হাজার কেন্দ্রে একযোগে শুরু হয়েছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা। যাতে অংশ নিচ্ছে ৩০ লাখ ৯৫ হাজার ১২৩ জন ক্ষুদে শিক্ষার্থী। ...

পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান সেনাপ্রধানের

নির্বাচনে সেনা মোতায়েন হলে, তারা পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবে বলে জানিয়েছেন, সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। রবিবার সকালে সাভার সেনানিবাসে সিএমপিসিএন্ডএ...

বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ না দেয়ায় তদন্ত করছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ

দীর্ঘ সময় বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ দিচ্ছে না এমন প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে তদন্ত করছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ। এর মধ্যে আর্থিকভাবে দুর্বল ৫টি কোম্পানির কার্যক্রম সরেজমিনে প...

এক দশকে উন্নয়ন বাজেট বেড়েছে প্রায় ৬ গুণ

গেল ১০ বছরে বাজেট চার গুণ বাড়লেও উন্নয়ন বাজেটের আকার বেড়েছে প্রায় ৬ গুণ। ভৌত অবকাঠামো থেকে শুরু করে আর্থ সামাজিক উন্নয়নে সরকার বড় অংকের টাকা খরচ করেছে। ফলে তা ভ...