DBC News
গাজীপুর সিটি নির্বাচনে প্রচারণার শুরু ১৮ জুন থেকে

গাজীপুর সিটি নির্বাচনে প্রচারণার শুরু ১৮ জুন থেকে

আইনি জটিলতা শেষে ১৮ই জুন সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে গাজীপুর সিটির নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা।

আইনী জটিলতায় মাঝপথে থেমে যায় গাজীপুরের নির্বাচন। আদালত রায়ের পর ১৮ই জুন শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় দফা প্রচার প্রচারণা। প্রার্থীদের প্রচারণা শুরুর তারিখ ১৮ই জুন। অথচ তার আগে থেকেই প্রার্থীদের বিরুদ্ধে কৌশলে প্রচারণার অভিযোগ উঠেছে।

নতুন তারিখ ঘোষণা অনুযায়ী, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৬শে জুন। সে অনুযায়ী ১৭ই জুন পর্যন্ত কোনো ধরনের প্রচার চালাতে পারবেন না প্রার্থীরা। এর আগে কেউ প্রচারের চেষ্টা করলে আচরণবিধি লঙ্ঘিত হবে মর্মে রিটার্নিং কর্মকর্তা এ বিষয়ে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করবেন। 

আনুষ্ঠানিকভাবে না হলেও প্রার্থীরা সকলেই নানাভাবে মাঠে তাদের উপস্থিত জানান দিয়েছেন। নির্বাচনকে সামনে রেখে গাজীপুরে এবার অন্যরকম ঈদের আমেজ বিরাজ করছে। কর্মী সমর্থকদের নিয়ে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করছেন। করছেন নির্বাচন সংক্রান্ত সলাপরামর্শও।

গতকাল গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী দুই মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগের মো. জাহাঙ্গীর আলম ও বিএনপির হাসান উদ্দিন সরকার ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। পরস্পর কোলাকুলি করে এ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এ সময় দু’পক্ষের একাধিক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচন উপলক্ষ্যে শতভাগ প্রস্তুতির কথা জানিয়ে খুলনার নির্বাচন থেকে নেতা-কর্মীদের অনুপ্রেরণা পাওয়ার কথা জানান আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম।

অন্যদিকে, আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরুর আগে টঙ্গীর নিজ বাসায় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার। এ সময় তিনি বলেন, কেউ ভোটের পরিবেশ অশান্ত করার চেষ্টা করলে তা প্রতিহত করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ই মে ভোটের দিন রেখে ৩১ মার্চ গাজীপুর ও খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে ইসি। প্রধান দুই দলের প্রার্থীসহ সব প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা পুরোদমে প্রচারে নেমেছিলেন। ভোট গ্রহণের সব ধরনের প্রস্তুতিও নিচ্ছিল ইসি।

তবে, ভোট গ্রহণের মাত্র ৯ দিন আগে ঢাকার সাভারের শিমুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ বি এম আজহারুল ইসলাম সুরুজ গত ৬ই মে হাইকোর্টে রিট করলে তিন মাসের জন্য নির্বাচন স্থগিত করেন আদালত। পরে আপিল বিভাগ এ নির্বাচন করার নির্দেশ দেয়। এরপর নতুন করে ভোটগ্রহণের তারিখ ২৬শে জুন ঘোষণা করে ইসি।

৫৭টি সাধারণ ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড নিয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভোটার সংখ্যা ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৪২৫ জন। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী দুই মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগের মো. জাহাঙ্গীর আলম ও বিএনপির হাসান উদ্দিন সরকার।

আরও পড়ুন

২১ আগস্ট:  হুজি- তারেকের দফায় দফায় বৈঠক

পঁচাত্তর পরবর্তী সময়ে ঘৃন্যতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড ঘটে ২০০৪ সালের একুশে আগস্ট। আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করতে শেখ হাসিনাসহ দলের শীর্ষ নেতাদের হত্যা পরিকল্পনা করা...

একনেকে ইভিএম ক্রয় সংক্রান্ত প্রকল্পের অনুমোদন

প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন, ইভিএম ক্রয়, সংরক্ষণ ও ব্যবহার সংক্রান্ত প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি, এ...

মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে হবিগঞ্জ-১ আসনে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। সরকার দলের পাশাপাশি সরব হয়ে উঠেছেন বিরোধী দল বিএনপি ও জাতীয় পার্টি...

উত্তরের ৩ জেলা বন্যায় প্লাবিত; তলিয়ে গেছে বিস্তীর্ণ এলাকা

উত্তরের তিন জেলায় ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা, ধরলা ও যমুনাসহ সবগুলো নদ নদীর পানি বেড়ে তলিয়ে গেছে চরাঞ্চলসহ তীরবর্তী নীচু এলাকাগুলো। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে কয়েক হাজার পরিব...