DBC News
বৈঠক: ট্রাম্পের প্রশ্নের জবাব দেননি কিম

বৈঠক: ট্রাম্পের প্রশ্নের জবাব দেননি কিম

সিঙ্গাপুরে চলছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এর ঐতিহাসিক বৈঠক। স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় সান্তোসা দ্বীপের কাপেলো হোটেলে এ বৈঠক শুরু হয়। 

মধ্যাহ্ন ভোজ এক সঙ্গে সেরেছেন দুই নেতা। এর আগে স্থানীয় সময় সকালে প্রায় পঁয়তাল্লিশ মিনিট ধরে দোভাষীর সহায়তায় একান্তে আলাপ করেন ট্রাম্প ও কিম। বৈঠকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিষয়ে ট্রাম্পের প্রশ্নের জবাব দেননি কিম, জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম সিএনএন। তবে ট্রাম্প আশা প্রকাশ করেন, আলোচনার মাধ্যমে মতপার্থক্য কমিয়ে আনতে পারবেন তারা। 

এর আগে, হাস্যোজ্জল মুখে একে অপরের সঙ্গে করমর্দন করেন দুই নেতা। এ সময় কিম বলেন, অনেক প্রতিবন্ধকতা জয় করে তাদের আজকের অবস্থানে আসতে হয়েছে। পুরোনো সংস্কার ত্যাগ করেই সিঙ্গাপুরে এসেছেন তিনি। অন্যদিকে ট্রাম্প বলেন, তাদের সামনে দারুণ এক সম্পর্ক অপেক্ষা করছে।  তিনি আরো বলেন, বৈঠক সফল হবেই।

এ সম্মেলন ওয়াশিংটনের সঙ্গে পিয়ংইয়ংয়ের ‘নতুন সম্পর্ক’ স্থাপিত হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম।

সম্মেলনে দীর্ঘদিনের যুদ্ধাবস্থার ইতি টেনে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে একটি আনুষ্ঠানিক শান্তি চুক্তিও সই হতে পারে। সেইসঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার পথ অনুসন্ধানের কাজ শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এ বৈঠকের জন্য স্থান ঠিক করা হয় সিঙ্গাপুর। রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ একটি দেশ হিসেবে সিঙ্গাপুর বিশেষভাবে পরিচিত। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দেশটির বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে।

অন্যদিকে, যে অল্প কয়েকটি দেশে উত্তর কোরিয়ার দূতাবাস আছে তাদের একটি হচ্ছে সিঙ্গাপুর। তাই নিরাপদ ও সুবিধাজনক স্থান হিসেবে এ দেশকেই বেছে নেয়া হয়েছে  ট্রাম্প ও কিমের ঐতিহাসিক বৈঠকের স্থান হিসেবে।

রবিবার জি-সেভেন সম্মেলন শেষ করে স্থানীয় সময় রাত আটটায় কানাডা থেকে সিঙ্গাপুরের পায়া লেবার বিমান ঘাঁটিতে অবতরণ করে ট্রাম্পকে বহনকারী বিশেষ বিমানটি।

কানাডা ত্যাগ করার আগে ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, কিমের সঙ্গের ঐতিহাসিক এই বৈঠক নিয়ে তিনি আশাবাদী। কিন্তু এবারের বৈঠকে যদি কিম জং উন ব্যর্থ হন তাহলে এ ধরণের সুযোগ আর পাবেননা বলেও জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এদিকে পূর্ব নির্ধারিত বৈঠকে অংশ নিতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের ঠিক ছয় ঘন্টা আগে ব্যক্তিগত বিমানে সিঙ্গাপুরে পৌঁছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। এ সময় উত্তর কোরীয় এই নেতাকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভিভিয়ান বালাকৃষ্ণ।

এই বৈঠক প্রথমবারের মতো মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে উত্তর কোরীয় কোনো নেতার বৈঠক।