DBC News
বাজেটে কৃষিতে বরাদ্দ ২৬ হাজার ২৫৯ কোটি টাকা

বাজেটে কৃষিতে বরাদ্দ ২৬ হাজার ২৫৯ কোটি টাকা

গেল বছর হাওড়ে আগাম বন্যার পর হঠাৎ করেই বেড়ে যায় চালের দাম। বাজারে দামের উর্ধ্বগতি থামাতেই সেসময় চাল আমদানিতে আরোপিত শুল্ক প্রত্যাহার করে সরকার। চালের দাম আগের পর্যায়ে নেমে না এলেও কৃষকের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে বাজেটে আমদানি করা চালের ওপর আবারো ২৮ শতাংশ শুল্ক আরোপের কথা জানায় অর্থমন্ত্রী।
  
এছাড়াও ভ্যাট প্রত্যাহার করা হয়েছে কৃষিপণ্যের বীজ, পোল্ট্রি শিল্পের কাঁচামাল আমদানিতে। প্রত্যাহার করা হয়েছে পোল্ট্রি শিল্পের কাস্টমস ডিউটি। 

তবে নতুন করে বসানো হয়েছে ৫ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি। এছাড়াও কৃষি জমি বেচাকেনায় থাকা ভ্যাটও প্রত্যাহারের প্রস্তাব করা হয়েছে।

এ বছর কৃষিখাতের জন্য মোট বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২৬ হাজার ২শ' ৫৯ কোটি টাকা যা গেল অর্থবছরে ছিল ২১ হাজার ৩৭ কোটি টাকা।  টাকা অংকে কৃষিতে বাজেট বরাদ্দ বাড়লেও মোট বাজেটের অনুপাতে বরাদ্দ কমেছে। 

কৃষকদের স্বার্থ সংরক্ষণে স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত গম, ভূট্টা, আলু ও কাসাভা থেকে উৎপাদিত স্টার্চের আমদানি শুল্ক ১৫ শতাংশ এবং রেগুলেটরি ডিউটি ১০ শতাংশ হারে নির্ধারণের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী।

২০১৭-১৮ অর্থবছরে মোট বাজেটের তুলনায় কৃষিতে বরাদ্দ ছিল ৬ দশমিক ১ শতাংশ। যা এ বছর কমে হয়েছে ৫ দশমিক ৭ শতাংশ।  অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, এবছরও অপরিবর্তিত থাকবে কৃষিতে ভর্তুকির পরিমান।

মোট বাজেটের প্রায় দুই শতাংশ কৃষিখাতে সংশোধিত বাজেটের তুলনায় ভর্তুকি বাড়ানো হয়েছে।

প্রস্তাবিত বাজেটে কৃষিখাতে মোট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ২৬ হাজার ২৫৯ কোটি টাকা। এরমধ্যে ভর্তুকি হিসাবে ৯ হাজার কোটি টাকা রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।

চলতি বছরের (২০১৭-১৮) ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকার মূল বাজেটে কৃষি খাতে ভর্তুকি ৯ হাজার কোটি টাকা রাখার প্রস্তাব করা হয়েছিলো। কিন্তু সংশোধিত বাজেটে তা কমিয়ে ৬ হাজার কোটি টাকা করা হয়। সংশোধিত বাজেটের তুলনায় আগামী অর্থবছরের ৫০ শতাংশ বেশি ভর্তুকির প্রস্তাব করা হয়েছে।

এছাড়া ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে জলাভূমি উদ্ধার, উপকূলীয় ভূমি রক্ষায় বাঁধ নির্মাণসহ এই খাতের উন্নয়নে ৭ হাজার ৯৩ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী।

গতবছরের চেয়ে এবার প্রায় ১০০০ কোটি টাকা বেড়েছে বরাদ্দ। প্রস্তাবিত বাজেটে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ে এ বছর ৭ হাজার ৯৩ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

২০১৭-১৮ অর্থ বছরে এই খাতে ৫ হাজার ৯২৬ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হলেও পরে তা বাড়িয়ে ৬ হাজার ১২২ কোটি টাকা উন্নীত করা হয়।
 

আরও পড়ুন

কর ও শুল্ক আরোপের প্রভাব নির্মাণ খাতে

বাজেটে কর ও শুল্ক আরোপের কারণে, বেড়ে গেছে রড ও সিমেন্টের উৎপাদন খরচ। বেড়ে গেছে দামও। আর তার প্রভাব পড়েছে নির্মাণ খাতে। ফলে ফ্ল্যাটের দাম মধ্যবিত্তের নাগালের বাই...

আইপিওতে কোটা বদল, সুবিধা পাবে না বাজার

আইপিওতে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কোটা সুবিধা বাড়ানোতে পুঁজিবাজারের বর্তমান পরিস্থিতি মোটেও বদলাবে না। বরং বিশ্লেষকদের আশঙ্কা- এতে সেকেন্ডারি মার্কেট থেকে বিনিয়োগ ত...

লটকন চাষে লাভবান নরসিংদীর কৃষকরা

নরসিংদীতে মৌসুমী ফল লটকন চাষ করে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হয়েছেন অনেক কৃষক। শুধু দেশে নয়, বিদেশের বাজারেও রপ্তানি হচ্ছে এই অপ্রচলিত ফলটি। দেশ-বিদেশে চাহিদা বাড়ায় জে...

৯% সুদে কৃষি ঋণ পায় না প্রান্তিক কৃষক

দেশের বেশিরভাগ ব্যাংকই কৃষককে সরাসরি ঋণ দেয় না। তাই কৃষি খাতে বছরে হাজার হাজার কোটি টাকা ঋণ ছাড় হলেও এর সুফল পাচ্ছে না প্রান্তিক কৃষক। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বল...