DBC News
মাদকবিরোধী অভিযানে জাতিসংঘের উদ্বেগ

মাদকবিরোধী অভিযানে জাতিসংঘের উদ্বেগ

গেল তিন সপ্তাহে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাদকবিরোধী অভিযানে ১৩০ জন নিহতের ঘটনায় উদ্বেগ ও নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ।

জেনেভায় নিজস্ব কার্যালয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক সংস্থার মুখপাত্র রাভিনা শ্যামদাসানি বলেন, অভিযান নিয়ে সরকারি বক্তব্যে উদ্বিগ্ন জাতিসংঘ। নিরপরাধ কেউ এ অভিযানে নিহত হয়নি, বাংলাদেশ সরকারের এ ধরনের বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি আরও বলেন, মাদকসেবী কিংবা ব্যবসায়ী হলেই কেউ তার মানবাধিকার থেকে বঞ্চিত হতে পারে না। 

মাদকবিরোধী অভিযানে সবধরনের হত্যার যথাযথ তদন্ত করতেও আহ্বান জানান জাতিসংঘের এই উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। প্রায় একমাসে ১৩ হাজার মানুষকে আটক করা হয়েছে বলেও জানানো হয়েছে।

গেল মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে মাদক বিরোধী অভিযানে নামে দেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। দেশের বিভিন্ন এলাকায় অভিযানের সময় পুলিশ ও র‌্যাবের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' মারা গেছেন ১৩০ জন মানুষ। এর মধ্যে জনপ্রতিনিধি, সংসদ সদস্যের আত্মীয় থেকে শুরু করে ক্ষমতাসীন দলের নেতাও আছেন। আটক হয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। 

আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর মতে, তারা সবাই মাদক ব্যবসায়ী। মাদকের বিরুদ্ধে এই অভিযানে 'বন্দুকযদ্ধে'র বিরোধীতা করে উদ্বেগ জানিয়ে আসছে মানবাধিকার সংগঠনগুলো। এটিকে 'বিচার বহির্ভূত হত্যা' উল্লেখ করে তারা বলছেন, এভাবে মানুষ হত্যার মধ্যে দিয়ে মানবাধিকার পরিস্থিতি হুমকির মধ্যে পড়েছে। তাই প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানিয়ে আসছেন তারা।

এছাড়া মাদক বিরোধী অভিযানের নামে বন্দুকের অপব্যবহার হচ্ছে কী না সেটি খতিয়ে দেখতে এসব মৃত্যুর কারণ তদন্তের দাবি জানান তারা